Latest Notes

The Place of Art in Education – Nandalal Bose Bengali Meaning |Class 11 আয় আরো বেঁধে বেঁধে থাকি (কবিতা) SAQ | আয় আরও বেঁধে বেঁধে থাকি কবিতার অতিসংক্ষিপ্তধর্মী প্রশ্নোত্তর নদীর বিদ্রোহ MCQ | নদীর বিদ্রোহ বহুবিকল্পধর্মী প্রশ্নোত্তর | দশম শ্রেণী দেবতামুড়া ও ডম্বুর (গল্প)- সমরেন্দ্র চন্দ্র দেববর্মা বেড়া (ছোটোগল্প) – মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় সিংহের দেশ(গল্প) – বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় সুভা (ছোটোগল্প) – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নতুনদা (গল্প) – শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় দস্যু-কবলে (গল্প) – বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় সামান্যই প্রার্থনা (কবিতা) – বিজনকৃষ্ণ চৌধুরী

১। ‘শ্ৰীপান্থ ‘ ছদ্মনামে লিখেছেন –

(ক) সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
(খ) সমরেশ বসু
(গ) বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
(ঘ) নিখিল সরকার

উত্তর: (ঘ) নিখিল সরকার

২। লেখক যে – অফিসে কাজ করতেন, সেটি হল –

(ক) সরকারি অফিস
(খ) পত্রিকা অফিস
(গ) সওদাগরি অফিস
(ঘ) বেসরকারি অফিস

উত্তরঃ (খ) পত্রিকা অফিস

৩। লেখকের অফিসে সবাই –

(ক) ফাঁকিবাজ
(খ) লেখক
(গ) ইঞ্জিনিয়ার
(ঘ) গম্ভীর

উত্তরঃ (খ) লেখক

৪। লেখকের হাতে ছাড়া আর কারও হাতে কী নেই?

(ক) সময়
(খ) ঘড়ি
(গ) কাজ
(ঘ) কলম

উত্তরঃ (ঘ) কলম

৫। লেখক ছাড়া তাঁর অফিসের আর সকলের সামনেই
রয়েছে –

(ক) ক্যালকুলেটর
(খ) কম্পিউটার
(গ) টাইপরাইটার
(ঘ) টেলিফোন

উত্তরঃ (খ) কম্পিউটার

৬। কীসে লিখে লেখকের সুখ নেই ?

(ক) কম্পিউটারে
(খ) টাইপরাইটারে
(গ) গলা – শুকনো ভোতা – মুখ কলমে
(ঘ) ফাউন্টেন পেন – এ

উত্তরঃ (গ) গলা – শুকনো ভোঁতা – মুখ কলমে

৭। বাংলা প্রবাদটি হল – কালি নেই, কলম নেই,
বলে আমি –

(ক) কলমচি
(খ) মুনশি
(গ) লেখক
(ঘ) মন

উত্তরঃ  (খ) মুনশি

৮। অনেক ধরে ধরে টাইপরাইটারে লিখে গেছেন মাত্র
একজন। তিনি হলেন-

(ক) সত্যজিৎ রায়
(খ) অন্নদাশঙ্কর রায়
(গ) রাজশেখর বসু
(ঘ) সুবোধ ঘোষ

উত্তরঃ (খ) অন্নদাশঙ্কর রায়

৯। নিজের হাতের কলমের আঘাতে মৃত্যু হয়েছিল যে
লেখকের, তাঁর নাম-

(ক) বনফুল
(খ) পরশুরাম
(গ) ত্রৈলোক্যনাথ মুখোপাধ্যায়
(ঘ) শৈলজানন্দ মুখোপাধ্যায়

উত্তরঃ(গ) ত্রৈলোক্যনাথ মুখোপাধ্যায়।

১০। সিজার যে কলমটি দিয়ে কাস্কাকে আঘাত করেছিলেন তাঁর পোশাকি নাম-

(ক) রিজার্ভার
(খ) স্টাইলাস
(গ) পার্কার
(ঘ) পাইলট

উত্তরঃ (খ) স্টাইলাস।

১১। চারখন্ড রামায়ণ কপি করে একজন লেখক অষ্টাদশ
শতকে কত টাকা পেয়েছিলেন-

(ক) সাত টাকা
(খ) আট টাকা
(গ) ন-টাকা
(ঘ) দশ টাকা

উত্তরঃ (ক) সাত টাকা।

১২। লেখক ছোটোবেলায় থাকতেন—

(ক) গ্রামে
(খ) শহরে
(গ) মফস্সলে
(ঘ) বিদেশে

উত্তরঃ (ক) গ্রামে

১৩। লেখক জন্মেছেন ‘ হারিয়ে যাওয়া কালি কলম
প্রবন্ধ রচনার-

(ক) ২০ – ২৫ বছর আগে
(খ) ৩০ বছর আগে
(গ) ৫০-৬০ বছর আগে
(ঘ) ৭৫ বছর আগে

উত্তরঃ (গ) ৫০-৬০ বছর আগে

১৪। লেখকরা ছোটোবেলায় কলম তৈরি করতেন –

(ক) পাখির পালক দিয়ে
(খ) নলখাগড়া দিয়ে
(গ) হাড় দিয়ে
(ঘ) রোগা বাঁশের কঞ্চি দিয়ে,

উত্তরঃ (ঘ) রোগা বাঁশের কঞ্চি দিয়ে

১৫। চিনারা চিরকালই লেখার জন্য ব্যবহার করে আসছে-

(ক) তুলি
(খ) ব্রোঞ্জের শলাকা
(গ) হাড়
(ঘ) নলাখাগড়া

উত্তরঃ (ক) তুলি

১৬। পালকের কলমের ইংরেজি নাম হল-

(ক) স্টাইলাস
(খ) ফাউন্টেন পেন
(গ) কুইল
(ঘ) রিজার্ভার পেন

উত্তরঃ (গ) কুইল।

১৭। কানে কলম গুঁজে দুনিয়া খোঁজেন –

(ক) প্রাবন্ধিক
(খ) দার্শনিক
(গ) গল্পকার
(ঘ) নাট্যকার

উত্তরঃ (খ) দার্শনিক

১৮। লেখকের দেখা দারোগাবাবুর কলম গোঁজা ছিল –

(ক) মাথার টুপিতে
(খ) প্যান্টের পকেটে
(গ) জামার পকেটে
(ঘ) পায়ের মোজায়

উত্তরঃ(ঘ) পায়ের মোজায়।

১৯। কালির অক্ষর নাইকো পেটে, চন্ডী পড়েন-

(ক) বেলুড় মঠ
(খ) শ্মশানঘাটে
(গ) মাঠেঘাটে
(ঘ) কালীঘাটে

উত্তরঃ (ঘ) কালীঘাটে।

২০। ‘হারিয়ে যাওয়া কালি কলম’ রচনাটি যে গ্রন্থ থেকে নেওয়া হয়েছে, সেটি হল-

(ক) যখন ছাপাখানা এলো
(খ) কালি আছে কাগজ নেই, কলম আছে মন নেই।
(গ) আজব নগরী
(জ্ঞ) বটতলা

উত্তরঃ (ক) কালি আছে কাগজ নেই, কলম আছে মন নেই

২১। কথায় আছে, কালি কলম মন, লেখে,…..জন।

(ক) এক
(খ) দুই
(গ) তিন
(ঘ) চার

উত্তরঃ (গ) তিন

২২। লেখক যেখানে কাজ করেন, সেটা হল-

(ক) ছাপাখানা
(খ) পুথি লেখার কারখানা
(গ) লেখালেখির অফিস
(গ) গল্প লেখার আসর

উত্তরঃ (গ) লেখালেখির অফিস

২৩। লেখক তাঁর অফিসে কোন জিনিসের কথা বলেছেন যা শুধু তাঁরই আছে?

(ক) একটি অভিধান
(খ) একটি কম্পিউটার
(গ) কলম
(ঘ) বই

উত্তরঃ (গ) কলম

২৪। কাচের দোয়াতে কালির বদলে থাকে –

(ক) জল
(খ) রং
(গ) মধু
(ঘ) দুধ

উত্তরঃ (ঘ) দুধ

২৫।  কুইল হল –

(ক) খাগের কলম
(খ) খাগড়ার কলম
(গ)পালকের কলম
(ঘ) কঞ্চির কলম

উত্তরঃ (গ) পালকের কলম

২৬। ‘বাবু কুইল ড্রাইভারস’ কথাটি কাদের বলা হত?

(ক) গরম গরম ইংরেজি বলা বাঙালি সাংবাদিকদের
(খ) সরল হিন্দি ভাষায় কথা বলা সাংবাদিকদের
(গ) ভাঙা ভাঙা হিন্দিভাষী সাংবাদিকদের
(ঘ) সাবলীল বাংলাভাষী সাংবাদিকদের

উত্তরঃ (ক) গরম গরম ইংরেজি বলা বাঙালি
সাংবাদিকদের

২৭। ‘বাবু কুইল ড্রাইভারস ‘ কথাটি বলেছেন—

(ক) লর্ড বেন্টিঙ্ক
(খ) লর্ড কার্জন
(গ) উইলিয়াম কেরি
(ঘ) হেস্টিংস

উত্তরঃ (খ) লর্ড কার্জন

২৮। লেখকের হাতে কলম এবং বাকিদের সামনে কী?

(ক) টাইপরাইটার
(খ) কম্পিউটার
(গ) প্রচুর বই
(ঘ) দোয়াত ও পেন

উত্তরঃ (খ) কম্পিউটার

২৯। ‘আমি যা লিখি ওঁরা ভালোবেসে আমার লেখাকেও এভাবে ছাপার জন্য তৈরি করে দেন।’ ‘ওঁরা’ বলতে
লেখকের –

(ক) বন্ধুরা
(খ) শিক্ষক-শিক্ষিকারা
(গ) সহপাঠীরা
(ঘ) সহকর্মীরা

উত্তরঃ (ঘ) সহকর্মীরা

৩০। লেখক একদিন কলম নিয়ে যেতে ভুলে গেলেই বিপদ কেন?

(ক) কারও কলমে কালি নেই
(খ) কারও সঙ্গে কলম নেই।
(গ) সবার সঙ্গে কথা বন্ধ
(ঘ) কলম চাওয়া নিষেধ

উত্তরঃ (খ) কারও সঙ্গে কলম নেই

৩১। লেখকের কাছে তাঁর অফিস তাঁর

(ক) জন্মস্থান
(খ) কারখানা
(গ) মৃত্যুস্থান
(ঘ) রান্নাঘর

উত্তরঃ (খ) কারখানা

৩২। ‘কালগুণে বুঝিবা আজ আমরাও তা-ই।’ আমরাও কী? –

(ক) লেখক
(খ) মুনশি
(গ) কবি
(ঘ) পণ্ডিত

উত্তরঃ (খ) মুনশি

৩৩। কলম তৈরির সময় বড়োরা শিখিয়েছিলেন—

(ক) কলমের মুখটা চিরে দেওয়া চাই
(খ) কলমের মাথাটা ভোতা হতে হবে।
(গ) কলমের মাথার দুটো অংশ থাকবে
(ঘ) কলমের মুখ চেরা চলবে না।

উত্তরঃ (ক) কলমের মুখটা চিরে দেওয়া চাই

৩৪। লেখার পাতা বলতে শৈশবে লেখকদের কী ছিল? –

(ক) কলাপাতা
(খ) লাউপাতা
(গ) তালপাতা
(ঘ) শালপাতা

উত্তরঃ (ক) কলাপাতা

৩৫। ‘আমরা তাতে হোমটাস্ক করতাম।’ ‘তাতে’ বলতে? –

(ক) বড়ো খাতায়
(খ) ব্ল্যাকবোর্ডে
(গ) কলাপাতায়
(ঘ) লাউপাতায়

উত্তরঃ (ক) কলাপাতায়

৩৬। কলাপাতায় হোমটাস্ক করে লেখক কোথায় নিয়ে যেতেন?

(ক) অফিসে
(খ) স্কুলে
(গ) গুরুমশায়ের কাছে
(ঘ) বাবার কাছে

উত্তরঃ (খ) স্কুলে

৩৭। হোমটাস্ক করা কলাপাতাগুলি মাস্টারমশাইকে
দেখানোর পর লেখকরা কী করতেন?

(ক) বাড়িতে রেখে দিতেন
(খ) বাবা-মাকে দেখাতেন
(গ) স্কুলে রেখে আসতেন
(ঘ) পুকুরে ফেলে দিতেন

উত্তরঃ (ঘ) পুকুরে ফেলে দিতেন

৩৮। ছিঁড়ে পত্র না ছাড়ে মসি’—এখানে ‘মসি’ শব্দের অর্থ

(ক) লোহা
(খ) ধুলো
(গ) কালি
(ঘ) পেন

উত্তরঃ (ক) কালি

৩৯। লেখক যখন ছোটো তখন তাদের বাড়িতে রান্না হত-

(ক) গোবর গ্যাসে
(খ) কাঠের উনুনে
(গ) স্টোভে
(ঘ) গ্যাস ওভেনে

উত্তরঃ (খ) কাঠের উনুনে

৪০। কড়াইয়ের তলায় কালি জমার কথা বলা হয়েছে কারণ-

(ক) গোবর গ্যাসে রান্না হত
(খ) কাঠের উনুনে রান্না হত
(গ) স্টোভে রান্না হত
(ঘ) মাটি লেপে দেওয়া হত

উত্তরঃ (খ) কাঠের উনুনে রান্না হত

৪১। কড়াইয়ের তলায় জমা কালি কী দিয়ে ঘষে তোলা হত?

(ক) কলাপাতা
(খ) লাউ পাতা
(গ) শালপাতা
(ঘ) পেয়ারা পাতা

উত্তরঃ (খ) লাউ পাতা

৪২। লেখকের ছোটোবেলায় লেখালেখির প্রথম সঙ্গী হিসেবে ছিল –

(ক) বাঁশের কলম
(খ) মাটির দোয়াত
(গ) ঘরে তৈরি কালি
(ঘ) সবগুলি

উত্তরঃ (ঘ) সবগুলি

৪৩। পঞ্চাশ-ষাট বছর বয়সে লেখকের কষ্ট হয়েছে কী নিয়ে?

(ক) কলম হাতছাড়া হতে চলেছে
(খ) দোয়াত কালি নেই
(গ) ফাউন্টেন পেনের দাম বেড়েছে
(ঘ) বাঁশ গাছ কমে গেছে

উত্তরঃ (ক) কলম হাতছাড়া হতে চলেছে

৪৪। নীল নদীর তীর থেকে লেখক কী নিয়ে আসতেন?

(ক) নল-খাগড়া
(খ) স্টাইলাস
(গ) জ্ঞানাঞ্জন শলাকা
(ঘ) ব্রোঞ্জের শলাকা

উত্তরঃ (ক) নল-খাগড়া

৪৫। লেখক কী হলে বনপ্রান্ত থেকে কুড়িয়ে নিতেন একটা হার?

(ক) মিশরীয়
(খ) ফিনিসীয়
(গ) ভারতীয়
(ঘ) ইরানীয়

উত্তরঃ (খ) ফিনিসীয়

৪৬। পালকের কলম এখন দেখতে পাওয়া যায়

(ক) পত্রিকার অফিসে
(খ) সরস্বতী পুজোর সময়
(ফ) বিশ্বকর্মা পুজোর সময়
(ঘ) পুরোনো দিনের তৈলচিত্র ফোটোগ্রাফে

উত্তরঃ (ঘ) পুরোনো দিনের তৈলচিত্র ফোটোগ্রাফে

৪৭। কার ছবিতে সামনে দোয়াতে গোঁজা পালকের
কলম দেখা যায়?

(ক) দেবী সরস্বতীর
(খ) রবীন্দ্রনাথের
(গ) উইলিয়াম জোন্স কিংবা কেরি সাহেবের
(ঘ) বিদ্যাসাগরের

উত্তরঃ (গ) উইলিয়াম জোন্স কিংবা কেরি সাহেবের

৪৮। লেখকের মতে তিনিই হলেন দার্শনিক, যিনি –

(ক) দর্শনের অধ্যাপক
(খ) কানে কলম গুঁজে দুনিয়া খোঁজেন
(গ) চোখে চশমা এঁটে বই পড়েন
(ঘ) ভাবের জগতে থাকেন

উত্তরঃ (খ) কানে কলম গুঁজে দুনিয়া খোঁজেন

৪৯। লেখক ছেলেবেলায় কাকে পায়ের মোজায় কলম রাখতে দেখেছিলেন?

(ক) মন্ত্রীমশাইকে
(খ) দারোগাবাবুকে
(গ) মাস্টারমশাইকে
(ঘ) পণ্ডিতমশাইকে

উত্তরঃ (খ) দারোগাবাবুকে

৫০। কোনো কোনো অতি আধুনিক ছেলে কোথায় কলম রাখে?

(ক) বুক পকেটে
(খ) পাঞ্জাবির পকেটে
(গ) কাঁধের ছোট্ট পকেটে
(ঘ) পায়ের মোজায়

উত্তরঃ (গ) কাধের ছোট্ট পকেটে

৫১। ‘কায়স্থ ‘ আর ‘ রাজপুত ‘ – কে চেনা যায় যথাক্রমে

(ক) কলম ও গায়ের রঙে
(খ) কলম ও গোঁফে
(গ) আভিজাত্য ও গোঁফে
(ঘ) দেশপ্রেম ও সত্যবাদিতায়

উত্তরঃ (খ) কলম ও গোঁফে

৫২। কালি তৈরি করতে লাগে-

(ক) আলু
(খ) ত্রিফলা
(গ) মিছরি
(ঘ) নিম

উত্তরঃ (খ) ত্রিফলা

৫৩। কালির অক্ষর নাইকো পেটে, চন্ডী পড়েন –

(ক) কালীঘাটে
(খ) বাবুঘাটে
(গ) গঙ্গাঘাটে
(ঘ) খেয়াঘাটে

উত্তরঃ (ক) কালীঘাটে

৫৪। দেশে সবাই সাক্ষর না হলেও কলম এখন –

(ক) অস্পৃশ্য
(খ) সর্বজনীন
(গ) দুর্লভ
(ঘ) মহার্ঘ

উত্তরঃ (খ) সর্বজনীন

৫৫। কলমের দুনিয়ায় সত্যিকারের বিপ্লব ঘটায়

(ক) ব্রোঞ্জের শলাকা
(খ) বল – পেন
(গ) ফাউন্টেন পেন
(ঘ) কুইল বা পালকের পেন

উত্তরঃ (গ) ফাউন্টেন পেন

৫৬। ফাউন্টেন পেনের বাংলা নাম ‘ ঝরনা কলম’ দেন –

(ক) বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
(খ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
(গ) শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
(ঘ) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর

উত্তরঃ (খ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৫৭। ফাউন্টেন পেনের স্রষ্টা—

(ক) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
(খ) লুইস অ্যাডসন
(গ) পিটার পার্কার
(ঘ) লুইস অ্যাডসন ওয়াটারম্যান

উত্তরঃ (ঘ) লুইস অ্যাডসন ওয়াটারম্যান

৫৮। লেখক প্রথম যে ফাউন্টেন পেনটি কিনেছিলেন তার নাম হল –

(ক) শেফার্ড
(খ) পার্কার
(গ) ওয়াটারম্যান
(ঘ) জাপানি পাইলট

উত্তরঃ (ঘ) জাপানি পাইলট

৫৯। লেখক তাঁর প্রথম ফাউন্টেন পেনটি কবে নাগাদ কেনেন?

(ক) প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর
(খ) দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর
(গ) ভারতের স্বাধীনতার পর
(ঘ) ভারত ছাড়ো আন্দোলনের সময়

উত্তরঃ (খ) দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর

৬০। বিখ্যাত লেখক শৈলজানন্দের ফাউন্টেন পেনের সংগ্রহ ছিল –

(ক) ডজন খানেক
(খ) হাফ ডজন
(গ) ডজন দুয়েক
(ঘ) ডজন তিনেক

উত্তরঃ (গ) ডজন দুয়েক

৬১। শৈলজানন্দ ফাউন্টেন পেন সংগ্রহের নেশা পেয়েছিলেন –

(ক) শরৎচন্দ্রের থেকে
(খ) রবীন্দ্রনাথের থেকে
(গ) অবনীন্দ্রনাথের থেকে
(ঘ) তারাশঙ্করের থেকে

উত্তরঃ (ক) শরৎচন্দ্রের থেকে

৬২। আদিতে ফাউন্টেন পেনের নাম ছিল –

(ক) ঝরনা কলম
(খ) রিজার্ভার পেন
(গ) ওয়াটারম্যান
(ঘ) শেফার্ড

উত্তরঃ (খ) রিজার্ভার পেন

৬৩। লেখক কঞ্চির কলমকে ছুটি দেন –

(ক) শহরে হাই স্কুলে ভরতির পর
(খ) কলেজে ওঠার পর
(গ) এমএ পরীক্ষার সময়
(ঘ) চাকরিতে ঢোকার পর

উত্তরঃ (ক) শহরে হাই স্কুলে ভরতির পর

৬৪। বিদেশে উন্নত ধরনের টেকসই নিব তৈরি হত –

(ক) বাঁশ বা কঞ্চি কেটে
(খ) পালক কেটে
(গ) গোরুর শিং বা কচ্ছপের খোল কেটে
(ঘ) প্ল্যাটিনাম কেটে

উত্তরঃ (গ) গোরুর শিং বা কচ্ছপের খোল কেটে

৬৫। প্রথম দিকে লেখা শুকনো করা হত –

(ক) ব্লটিং পেপার দিয়ে
(খ) শুকনো বালি দিয়ে
(গ) চক দিয়ে
(ঘ) কাপড়ের টুকরো দিয়ে

উত্তরঃ (খ) শুকনো বালি দিয়ে

৬৬। সোনার দোয়াত কলমের সত্যতা লেখক
জেনেছিলেন –

(ক) অবনীন্দ্রনাথের দোয়াত সংগ্ৰহ থেকে
(খ) শৈলজানন্দের কাছ থেকে
(গ) সুভো ঠাকুরের দোয়াত সংগ্রহ দেখে
(ঘ) শরৎচন্দ্রের কলম সংগ্রহ থেকে

উত্তরঃ (গ) সুভো ঠাকুরের দোয়াত সংগ্রহ দেখে

৬৭। ফাউন্টেন পেনের পর বাজারে এল –

(ক) খাগের কলম
(খ) কঞ্চির কলম
(গ) পালকের কলম
(ঘ) বল – পেন

উত্তরঃ (ঘ) বল – পেন

৬৮। কম্পিউটার কাদের জাদুঘরে পাঠাবে বলে প্রতিজ্ঞা করেছে ?

(ক) ফাউন্টেন পেনকে
(খ) খাগের কলমকে
(গ) বল – পেনকে
(ঘ) সব কলমকে

উত্তরঃ (ঘ) সব কলমকে

৬৯। যারা ওস্তাদ কলমবাজ তাদের বলা হত –

(ক) স্টেনোগ্রাফার
(খ) ক্যালিগ্রাফিস্ট
(গ) টাইপিস্ট
(ঘ) জার্নালিস্ট

উত্তরঃ (খ) ক্যালিগ্রাফিস্ট

৭০। উনিশ শতকে বত্রিশ হাজার অক্ষর লেখানোর
পারিশ্রমিক ছিল –

(ক) আটআনা
(খ) ষোলোআনা
(গ) বারোআনা
(ঘ) চারআনা

উত্তরঃ (গ) বারোআনা

৭১। অনেক ধরে ধরে টাইপরাইটারে লিখে গেছেন মাত্র একজন। তিনি হলেন –

(ক) সত্যজিৎ রায়
(খ)অন্নদাশঙ্কর রায়
(গ) রাজশেখর বসু
(ঘ) সুবোধ

উত্তরঃ (খ) অন্নদাশঙ্কর রায়

৭২। একদিন কোনো কারণে অফিসে কী নিয়ে যেতে ভুলে গেলে বিপদ?

(ক) চাবি
(খ) কলম
(গ) চশমা
(ঘ) ঘড়ি

উত্তরঃ (খ) কলম

৭৩। ত্রিফলা বলতে যে – তিনটি ফলকে বোঝায়, সেগুলি হল –

(ক) হরীতকী, সুপারি, এলাচ
(খ) হরীতকী, সুপারি, আমলকী
(গ) বহেড়া, হরীতকী, আমলকী
(ঘ) বহেড়া, সুপারি, আমলকী

উত্তরঃ (গ) বহেড়া, হরীতকী, আমলকী

৭৪। লেখক প্রাচীন ফিনিসীয় হলে লেখার জন্য ব্যবহার করতেন—

(ক) পালক
(খ) স্টাইলাস
(গ) হাড়
(ঘ) নলখাগড়া

উত্তরঃ (ক) পালক

৭৫। ‘স্টাইলাস ‘ আসলে কী?

(ক) প্ল্যাটিনাম শলাকা
(খ) লৌহ শলাকা
(গ) ব্রোঞ্জের শলাকা
(ঘ) তামার শলাকা

উত্তরঃ (গ) ব্রোঞ্জের শলাকা

৭৬। চিনারা চিরকাল লিখে আসছে –

(ক) তুলিতে
(খ) ব্রোঞ্জের শলাকাতে
(গ) কুইলে
(ঘ) খাগড়ার কলমে

উত্তরঃ (ক) তুলিতে

৭৭। জ্ঞানাঞ্জন শলাকা আসলে –

(ক) কাজল পরার কাঠিবিশেষ
(খ) কলম
(গ) পেনসিল
(ঘ) হাড় থেকে তৈরি পেনবিশেষ

উত্তরঃ (খ) কলম

হারিয়ে যাওয়া কালিকলম SAQ👈

Spread the love